57 বার প্রদর্শিত
"সাধারন জ্ঞান" বিভাগে করেছেন
শীতের সেশ গায়ের চামড়া উঠছে কি ভাবে বন্দ করা যায়?

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন

স্বাভাবিকভাবে দেখা যায় যে শীতকালে আর্দ্রতা কম থাকে বলে ত্বকের শুষ্কতা বেড়ে যায়। তবে এই সমস্যাটি সবচেয়ে বেশি হল শীত পরবর্তী বসন্তকালে। কেননা এ সময়ের রুক্ষ্ম বাতাস শরীরের শুষ্কতার জন্য দায়ী। এর ফলে হাত পায়ের চামড়া খসখসে হয়ে যায় এবং এগুলো উঠতে শুরু করে। আবার দেখা যায় যে ত্বকের বিভিন্ন অংশের তেল গ্রন্থি থেকে তেল নির্গত হয়ে ত্বকের রুক্ষ্মতা স্বাভাবিক রাখে যা তেলগ্রন্থী না থাকার কারণে হাত এবং পায়ের ত্বকে হয় না।

ত্বকের এই সমস্যাটি রোগের পর্যায়ে পড়ে না। কারণ আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে এই সমস্যাটি সবারই হয়ে থাকে যা নিরাময়ের একমাত্র উপায় হল ত্বকের যত্ন নেয়া। আবার অনেকের এই সমস্যাটি এত বেশি হয়ে থাকে যে হাত পায়ের ত্বক ফেটে তা থেকে রক্তও বের হয়। একে ইকথায়সিস বলে। তবে এতে চিন্তিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। সঠিকভাবে ত্বকের যত্ন নিলেই এই সমস্যাটির সমাধান নিশ্চিত।

এর প্রতিরোধে যা করবেন :

- হাতের জন্য তিলের তেল, গ্লিসারিন ও গোলাপজল সমপরিমাণে মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। তিলের তেলের পরিবর্তে জলপাইয়ের তেলও ব্যবহার করতে পারেন।

- পায়ের জন্য মধু, গ্লিসারিন, লেবুর রস ও ঘৃতকুমারীর রস একসঙ্গে মিশিয়ে লাগাতে পারেন।

- সয়াবিন গুঁড়া হাত ও পায়ের জন্য খুবই ভালো। বাজার থেকে সয়াবিন কিনে কড়াইয়ে তেল দিয়ে হালকা আঁচে কিছুক্ষণ নেড়ে গুঁড়া করে সেটা দিয়ে হাত ও পা ধুতে পারেন। এটা পরিষ্কারের পাশাপাশি ময়েশ্চারাইজারের ভূমিকা রাখে। এভাবে হাত-পা পরষ্কার রাখলে এবং রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে গ্লিসারিন ব্যবহার করলে চামড়া উঠা বন্ধ করা যায়। ধন্যবাদ

করেছেন

হুম সঠিক বলেছেন


আপনার বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বা অজানা উত্তরের জন্য বিনামূল্যে আমাদের প্রশ্ন করতে পারবেন। প্রশ্ন করতে দয়া করে প্রবেশ, কিংবা নিবন্ধন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

9.1k টি প্রশ্ন

7.2k টি উত্তর

249 টি মন্তব্য

811 জন সদস্য

প্রশ্ন করুন
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ সুস্বাগতম, এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন, বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
ক্যোয়ারী অ্যানসারস এ প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, কোনভাবেই ক্যোয়ারী অ্যানসারস দায়বদ্ধ নয়।
...